রেইফার গেইলদের নতুন কোচ

Apr 13,2019 04:45am খেলা Editor

স্পোর্টস ডেস্ক, ১৩ এপ্রিল : গুঞ্জনই সত্যি হলো। বিশ্বকাপের দুই মাস আগে চাকরি হারালেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ কোচ রিচার্ড পাইবাস। তাঁর জায়গায় বিশ্বকাপে ক্রিস গেইল, জেসন হোল্ডারদের অন্তর্র্বতী কোচের দায়িত্ব পেলেন ফ্লয়েড রেইফার। ড্যারেন সামি, কিয়েরন পোলার্ড, সুনীল নারিনের মতো তারকাদের জাতীয় দল থেকে দূরে থাকার পেছনে বড় ভূমিকা ছিল পাইবাসের। সেই তিনি এ বছরের জানুয়ারিতে আবারও কোচ হয়ে আসেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের। এটা মানতে পারছিলেন সাবেকদের অনেকে।

গত মার্চে বোর্ড সভাপতি পদে ডেভ ক্যামেরনকে হারিয়ে রিকি স্কেরিট জেতার পর থেকে গুঞ্জন শুরু হয় পাইবাসের বিদায়ের। গত পরশু বোর্ড সভার পর সত্যি হলো সেটাই। পাশাপাশি চাকরি হারিয়েছেন প্রধান নির্বাচক কোর্টনি ব্রাউন। তাঁর জায়গায় ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাচক রবার্ট হেইনস। বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের দায়িত্ব ফ্লয়েড রেইফারের কাঁধে দেওয়ার ব্যাখ্যা বোর্ড প্রধান রিকি স্কিরিট দিলেন এভাবে, আমাদের স্থানীয় কোচদের মধ্যে ২০১৮ সালের পর অনেক উন্নতি করেছে রেইফার। আমাদের বিশ্বাস ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের হারানো গৌরব ফেরাতে ভূমিকা রাখবে ও। নির্বাচকদেরও বলা আছে সেরাদের নিয়ে বিশ্বকাপ দল গড়ার।

৪৬ বছর বয়সী রেইফার ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে খেলেছেন ৬ টেস্ট ও ৮ ওয়ানডে। ১৯৯৯ সালে জাতীয় দলে জায়গা হারানোর পর নাটকীয়ভাবে ফিরেছিলেন ১০ বছর পর। তাও অধিনায়ক হিসেবে। বোর্ডের সঙ্গে দ্বন্দ্বে ২০০৯ সালে জাতীয় দল থেকে সরে দাঁড়ান জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা। তখন বাংলাদেশের বিপক্ষে অধিনায়ক করে ফেরানো হয় তাঁকে। দ্বিতীয় সারির ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে প্রথমবার টেস্ট সিরিজ জয়ের স্বাদ পায় বাংলাদেশ। সেই রেইফার আবারও নাটকীয়ভাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কোচ। বিশ্বকাপের মতো মঞ্চে দায়িত্বটা পাওয়ায় গর্বিত তিনি, ‘এই দায়িত্ব পাওয়াটা সত্যিকারের সম্মানের। আমরা শুধু লড়াই করার জন্য খেলব না, জিততে চাই। ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটের গৌরব ফেরাতে চেষ্টা করব আমি।’ বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডে, বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ খেলবে একটি ত্রিদেশীয় সিরিজ। সেখানেই নতুন শুরুর অপেক্ষায় রেইফার। বাংলাদেশের বিপক্ষে এরই মধ্যে একটি টি-টোয়েন্টি সিরিজে দায়িত্ব পালন করে ক্যারিবীয়দের জয় এনে দিয়েছেন তিনি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের এমন পালাবদলে বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাওয়ার স্বপ্ন দেখছেন কিয়েরন পোলার্ড। পাঞ্জাবের বিপক্ষে ৩১ বলে ৮৩ রানের ঝড় তোলার পর বলেছিলেন, ‘আমি এত দিন কালো তালিকাভুক্ত ছিলাম। ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটে এখন পালাবদল চলছে। আর সবার মতো আমিও স্বপ্ন দেখছি বিশ্বকাপ খেলার।’ পোলার্ড, সুনীল নারিনরা ফিরলে শক্তিশালী হয়েই বিশ্বকাপে যাবে ক্যারিবীয়রা। ক্রিকবাজ

(সন্ধি নিউজ/ডেস্ক/ওএইচ)

সর্ব শেষ খবর