বন্দুকযুদ্ধে তিন জেলায় নিহত ৩

Sep 2,2019 06:41pm অপরাধ Editor

নিউজ ডেস্ক, ০২ সেপ্টেম্বর : র‌্যাব ও ডিবি পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ৩ জেলায় ৩ জন নিহত হয়েছে। এর মধ্যে কক্সবাজারের মহেশখালীতে নিহত, সিলেটের গোয়াইনঘাটে মাদক কারবারি এবং ময়মনসিংহে চোর মারা যায়। নিচে প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরÑ

মহেশখালী (কক্সবাজার) : উপজেলায় র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুর্ধর্ষ জলদস্যু নুরুল কাদের ওরফে রানা ডাকাত (৩৪) নিহত হয়েছে। সোমবার ভোরে মাতারবাড়ির সাইরার ডেইল এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তলসহ ৭টি অস্ত্র ও ৬৩ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। নিহত রানা তালিকাভুক্ত জলদস্যু ছিল। সে মহেশখালী উপজেলার ধলঘাটা ইউনিয়নের সাপমারার ডেইল গ্রামের নুরুল হকের ছেলে। র‌্যাবের ভাষ্য, নিহত রানা ডাকাতের বিরুদ্ধে অস্ত্র, ডাকাতি ও সাগরে দস্যুতাসহ নানা অপরাধে অসংখ্য মামলা রয়েছে।

র‌্যাব-৭ মিডিয়া কর্মকর্তা সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মো. মাশকুর রহমান এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ভোরে মাতারবাড়ির সাইরার ডেইল এলাকায় র‌্যাব-৭ এর টহল দলের সঙ্গে জলদস্যুদের বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। পরে ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তলসহ ৭টি অস্ত্র ও ৬৩ রাউন্ড গুলি এবং দস্যু নুরুল কাদের রানাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরে রানাকে মহেশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন। তিনি আরো বলেন, নুরুল কাদের রানা বঙ্গোপসাগর এলাকার একজন কুখ্যাত দস্যু। গত ২৬ আগস্ট নোয়াখালী হাতিয়া উপজেলাসংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরার ট্রলার এমভি মা-বাবার দোয়া ও এমভি মাহিনে ডাকাতির মূল হোতা সে।

মহেশখালী থানার ওসি প্রভাষপ্রন্দ্র ধর বলেন, মাতারবাড়ির সাইরার ডেইল এলাকায় থেকে গুলিবিদ্ধ জলদস্যু রানা ডাকাতের লাশ উদ্ধার করা হয়। ময়নাতদন্তে জন্য লাশ কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

গোয়াইনঘাট (সিলেট) : উপজেলায় র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে পলাতক আসামির মৃত্যু হয়েছে। গত রবিবার রাত ৩টার দিকে উপজেলার সালুটিকর এলাকার মিত্রীমহল গ্রামের এমডিসি ব্রিকস ফিল্ড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফজর আলী (৩২) কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার গৌখালের পাড় এলাকার মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে। তার বিরুদ্ধে মাদক ও চোরাচালানসহ বিভিন্ন থানায় প্রায় ২১টি মামলা রয়েছে।

র‌্যাব-৯ এর মিডিয়া অফিসার মো. মনিরুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রবিবার গভীর রাতে র‌্যাব-৯ মিত্রীমহল এমডিসি ব্রিকস ফিল্ড এলাকায় ফজর আলীকে গ্রেপ্তার করতে গেলে তার সহযোগীরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি করে। একপর্যায়ে র‌্যাব পাল্টা গুলি চালালে ঘটনাস্থলে ফজর আলীর মৃত্যু হয়। এ সময় তার সহযোগী অন্য মাদক কারবারিরা পালিয়ে যায়। পরে লাশ উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

বন্দুকযুদ্ধে মাদক কারবারি ফজর আলীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে গোয়াইনঘাট থানার ওসি মো. আব্দুল আহাদ বলেন, তার বিরুদ্ধে গোয়াইনঘাটসহ সিলেটের বিভিন্ন থানায় ২১টিরও অধিক মামলা রয়েছে।

ময়মনসিংহ : জেলা পুলিশের (ডিবি) সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে খলিল (৩৭) নামে এক অটোরিকশা চোর নিহত হয়েছে। নিহত খলিল আন্তঃজেলা অটোরিকশা চোর চক্রের সক্রিয় সদস্য ছিল। গত রবিবার রাত সোয়া ১টার দিকে শহরের বাদেকল্পা এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহতের বাড়ি ফুলবাড়িয়া উপজেলার বাকচালা গ্রামে। এ ঘটনায় ২ পুলিশ সদস্য আহত হন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে চোরাইকৃত দুটি অটোরিকশা ও একটি পাইপগান উদ্ধার করা হয়। নিহত খলিলের বিরুদ্ধে ৮টি অটোরিকশা চুরিসহ ১০টি মামলা রয়েছে।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি শাহ কামাল আকন্দ জানান, আন্তঃজেলা অটোরিকশা চোর চক্রের সদস্যরা চোরাই অটোরিকশা কেনাবেচা করছেÑ এমন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান চালায় ডিবি পুলিশ। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা গুলি চালায়। ডিবির সদস্যরাও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়েন। পরে চোর চক্রের সদস্যরা পালিয়ে যায়। এ সময় গুলিবিদ্ধ অবস্থায় খলিলকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর কর্মরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

(সন্ধি নিউজ/প্রতিনিধি/ডেস্ক/ওএইচ)

Developed by e-Business Soft Solution