ভবিষ্যতে শোকের প্রকাশ যেমন হবে

Feb 4,2019 03:23pm ছবিঘর Iqbal Ahmed Tuhin

কিংবদন্তি যখন মোটিভেশনাল স্পিকার

ভক্তের শোক প্রকাশ: একজন বক্তা, একজন মোটিভেশনাল স্পিকার, একজন কিংবদন্তি মাখন ভাইয়ের হঠাৎ চলে যাওয়ায় সারা দেশ আজ শোকে কাতর। মাখন ভাই, এভাবে হুট করে চলে যাবেন ভাবতেও পারিনি। মাখন ভাইকে নিয়ে কত স্মৃতি! কোনটা ছেড়ে কোনটা বলব? মাখন ভাই এমন স্পিকার ছিলেন, যাঁর মোটিভেশন শুনে অনেক বেকার যুবক ব্যবসায় নেমে আজ সফল। মাখন ভাইয়ের স্পিচ শুনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এক ইউনিটে ফেল করে আরেক ইউনিটে প্রথম হয়েছিল এক ছেলে। একবার মাখন ভাই মঞ্চে স্পিচ দিচ্ছিলেন, এক ছেলে মঞ্চে উঠে মাখন ভাইয়ের পা ধরে কাঁদতে কাঁদতে বলেছিল, ‘ভাই, আপনি আমার আইডল। ফেসবুকে আমাকে ফলোয়ার লিস্টে রেখেছেন, এতে আমি ধন্য।’ শুনে মাখন ভাই বলেছিলেন, ‘ওরে বোকা, ফলোয়ার না, আজ থেকে তোর জায়গা হবে আমার ফ্রেন্ড লিস্টে।’ আহ্! কজন কিংবদন্তি এত উদার হতে পারে? এসব মহানুভবতা আমরা কোথায় পাব, মাখন ভাই? কেন চলে গেলেন? কেন, কেন?

কিংবদন্তি যখন ফেসবুক সেলিব্রিটি

ভক্তের শোক প্রকাশ: কিংবদন্তিতুল্য ফেসবুক সেলিব্রিটি, অ্যাকটিভ লাইকার আয়নাল ভাই আমাদের সবাইকে ছেড়ে না–ফেরার দেশে চলে গেছেন। তাঁর মৃত্যুতে ফেসবুকজুড়ে শোকের ছায়া। সেলিব্রিটিদের সেলিব্রিটি অ্যাকটিভ লাইকার আয়নাল ভাইয়ের অকালবিয়োগে বেদনায় নীল রং ধারণ করেছে ফেসবুক। হবে নাই–বা কেন? এই ফেসবুকের জন্য তিনি কী না করেছেন? সারা জীবন পার করেছেন ফেসবুকিং করে। প্রতি ঘণ্টায় একটা করে স্ট্যাটাস দিতেন। দেশের এমন কোনো ইস্যু ছিল না, যেটা নিয়ে তিনি লেখেননি! শুধু ভক্তদের কথা চিন্তা করে নাওয়া–খাওয়া ভুলে ফেসবুকে অ্যাকটিভ থাকতেন তিনি। রাতের পর রাত জেগে ইনবক্সে মেসেজের রিপ্লাই দিয়েছেন, দিয়েছেন কমেন্টের রিপ্লাই। পোকের রিপ্লাই দিতে গিয়ে কত বেলা যে মশা মারার সময় পাননি, তার খবর কি তোমরা রাখো হে আধুনিক জেনারেশন? খাওয়াদাওয়ার অনিয়ম করে পেটে আলসার বাঁধিয়েছেন। সেই আলসারই আজ কাল হলো! নিজের দুঃখ লুকিয়ে সমসাময়িক ইস্যু নিয়ে এভাবে আর কে লিখবেন? অ্যাকটিভ লাইকার আয়নাল ভাই, এভাবে চলে যেতে নেই! আমরা এখন কার স্ট্যাটাস শেয়ার করব?

কিংবদন্তি যখন ইউটিউবার

ভক্তের শোক প্রকাশ: জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেল স্লাম দ্য ক্লাউন ফিশের কিংবদন্তি কনটেন্ট নির্মাতা স্লাম ভাই আমাদের এতিম করে আজ ওপারে পাড়ি জমিয়েছেন। জানি, একদিন সবাইকে চলে যেতে হবে, তারপরও কিছু কিছু চলে যাওয়া মেনে নিতে কষ্ট হয়। স্লাম ভাইয়ের সঙ্গে কত স্মৃতি! ইউটিউবের শুরুর দিকে যখন সাবস্ক্রাইবার হচ্ছিল না, ভিউ বাড়ছিল না, ভাই তখন এক রাতেই অসম্ভব কাণ্ড করে ফেললেন। রাত জেগে এক হাজার ফেক আইডি খুলে ফেললেন তামিল নায়িকাদের ছবি দিয়ে। তারপর সেসব আইডি থেকে নিজের কনটেন্ট শেয়ার করতে লাগলেন ক্রমাগত। বিভিন্ন গ্রুপে, সংবাদপত্রের কমেন্ট বক্সে। এই যে স্ট্রাগল তিনি করেছেন, তরুণ প্রজন্ম কি এসব চিন্তা করতে পারবে? এখনকার তরুণেরা অল্পতেই সাবস্ক্রাইবার আর ভিউ চায়। তাদের উদ্দেশে আমি বলব, তোমরা স্লাম ভাইকে অনুসরণ করো। স্লাম ভাই সব সময় একটা কথা বলতেন, ‘ভিউ বাড়বে না মানে! প্রয়োজনে পাবলিকের চুলকানি তুলে দেব। তা–ও ভিউ বাড়িয়েই ছাড়ব!’

কিংবদন্তি যখন মিউজিক্যালি/টিকটক অভিনেত্রী

ভক্তের শোক প্রকাশ: মিউজিক্যালি ও টিকটক–দুনিয়ায় আলোড়ন সৃষ্টিকারী অভিনেত্রী ব্যাটরিনা আজ স্ট্রোক করে মারা গেছেন! খবরটা দেখার পর থেকে বারবার মনে হচ্ছে—এটা মিথ্যা হোক। কিন্তু চাইলেই কি সব হয়? মিউজিক্যালি–দুনিয়ায় এ রকম একজন ব্যাটরিনা আর কবে আসবে? ভয়েসের সঙ্গে এভাবে নিখুঁতভাবে আর কে লিপ মেলাতে পারবে? এভাবে কে আমাদের হাসাবে, কে কাঁদাবে, কে ভাবাবে? মিউজিক্যালি, টিকটক—দুই মাধ্যমেই জনপ্রিয়, গণমানুষের অভিনেত্রী কি এই দেশ আর পাবে? হায় রে দুর্ভাগা দেশ, একজন কিংবদন্তি ব্যাটরিনাকে ধরে রাখতে পারলে না! শেইম...

সর্ব শেষ খবর